Showing posts with label Mastercard. Show all posts
Showing posts with label Mastercard. Show all posts

Sunday, September 20, 2020

মাস্টার কার্ড কি: কীভাবে মাস্টার কার্ড পাবেন? [Updated 2020]

মাস্টার কার্ড কি: কীভাবে মাস্টার কার্ড পাবেন? [Updated 2020]

মাস্টার কার্ড কি: কীভাবে মাস্টার কার্ড পাবেন? [Updated 2020]

মাস্টার কার্ড কি?


আমরা সবাই একটি নাম প্রায় সব জায়গাতেই শুনতে পাই তা হলো মাস্টার কার্ড। আপনাদের অনেকের মনে হয়ত প্রশ্নও জেগেছে মাস্টার কার্ড কি? এ বিষয়ে জানতে চেয়েছেন।

আবার অনেকেই হয়ত মাস্টার কার্ড কিভাবে নিতে হয় তা জানেন না। যদি আপনি না জেনে থাকেন মাস্টার কার্ড কিভাবে নিতে হয় তাহলে এ পোস্টটি আপনার জন্যই। 


আগে জেনে নি মাস্টার কার্ড কি?


মাস্টার কার্ড হলো একটি ইন্টারন্যাশনাল কোম্পানি। যারা সারাবিশ্বে ইন্টারন্যাশনাল লেনদেন সুবিধা প্রদান করে থাকে। তারা মানুষের দেনদেনকে সহজ করতে মাস্টার কার্ড নামের একটি সেবা চালু করেছে। এর মাধ্যমে আপনি সকল ইন্টারন্যাশনাল পেমেন্ট করতে পারবেন।  


আপনি যদি কোন বিদেশি কোম্পানি থেকে ডোমেইন হোস্টিং কিনতে চান বা Aliexpress, Alibaba থেকে কোন প্রোডাক্ট কিনতে চান তাহলে আপনাকে ডলার পেমেন্ট করতে হবে।

এখানে অবশ্যই আপনি বিকাশ,রকেট ব্যবহার করতে পারবেন না। এজন্য আপনার ইন্টারন্যাশনাল কারেন্সি লাগবে। আপনার এমন কোন মাধ্যমের সহায়তা নিতে হবে যারা ইন্টারন্যাশনালি পেমেন্ট সুবিধা প্রদান করে থাকে। এখানে কাজে আসে মাস্টার কার্ড।

আশা করি বুঝতে পেরেছেন মাস্টার কার্ড কি?


এখন বলি মাস্টার কার্ড কিভাবে পাবেন?


ইন্টারনেটে অনেকে আর্টিকেলে দেখে থাকবেন তারা বলেছে বাংলাদেশের লোকাল ব্যাংকগুলো থেকে মাস্টার কার্ড নিতে হলে আপনাকে কোটিপতি হতে হবে।

তবে একটা কথা জেনে রাখুন এসব পুরোনো প্রবাদ এখন আর চলে না। মাস্টার কার্ড অন্যতম প্রয়োজনীয় একটি কার্ড। তাই বাংলাদেশের প্রায় সকল ব্যাংকই এখন এটি প্রদান করে থাকে।

এজন্য আপনাকে কোটিপতি হতে হবে না।


বাংলাদেশের লোকাল ব্যাংকগুলো(EbL, জনতা,সোনালি আরো আছে) দুই ধরনের কার্ড দিয়ে থাকে।

একটি হলো লোকাল মাস্টার আরেকটি হলো ইন্টারন্যাশনাল মাস্টার কার্ড।


লোকাল মাস্টার কার্ড দিয়ে আপনি যদি শুধু দেশের অভ্যন্তরেই লেনদেন করতে পারবেন। এগুলো ইন্টারন্যাশনাল কারেন্সি সাপোর্ট করে না।


আপনি ইন্টারন্যাশনাল পেমেন্ট করতে চাইলে আপনাকে অবশ্যই ইন্টারন্যাশনাল কার্ডটি নিতে হবে।

এটি আপনাকে ডলার পেমেন্ট করার সুবিধা দিবে। এর মাধ্যমে যেকোন ধরনের অনলাইন কেনাকাটা করতে পারবেন।


আরো পড়ুনঃ★যেসব দেশে ফেসবুক নিষিদ্ধ। 

মানুষ কি ডাইনোসরের মত বিলুপ্ত হয়ে যেতে পারে

★ গেম অফ থ্রোনস নিয়ে বিষ্ময়কর কিছু তথ্য।

ঘুড়ি উড়াতে গিয়ে যুবকের মৃত্যু। 

★ ১৫ বছরের মধ্যেই আর্কটিকের সব বরফ হলে যাবে।

★ ম্যাজিক মাশরুম পর্যবেক্ষণ করলো বিজ্ঞানীরা।


দেশে থেকেই মাস্টার কার্ড নেওয়ার জন্য কি করবেন?
বা মাস্টার কার্ড কিভাবে নিতে হয়?


চলুন দেখে নেওয়া যাক কিভাবে মাস্টার কার্ড নিবেনঃ


১. মাস্টার কার্ড নিতে হলে আপনাকে অবশ্যই লোকাল কেন ব্যাংকে যেতে হবে। সেখানে গিয়ে আপনার চাহিদা জানাতে হবে। তারাই সকল ধাপ বলে দিবে।

 প্রথমে আপনাকে একটি ব্যাংক একাউন্ট খুলতে হবে।

এজন্য লাগবে NID কার্ড, ২ কপি পাসপোর্ট সাইজ ছবি। আপনি যদি ইন্টারন্যাশনাল কারেন্সি যুক্ত মাস্টার কার্ড নিতে চান,মানে এমন কার্ড নিতে চান যা দিয়ে অনলাইনে সকল কেনাকাটা করবেন তাহলে আপনাকে অবশ্যই একটি ভিসা করতে হবে।

আপনার যদি ভিসা না থাকে তাহলে কিন্তু ইন্টারন্যাশনাল কার্ড পাবেন না।

ভিসা জমা দিলেই তারা একটি আপনাকে ডলার ইনডোজ করে দিবে।


এখন আপনি চাইলে অনলাইনেও মাস্টার কার্ড অর্ডার করতে পারেন। 


চলুন দেখি কিভাবে অনলাইনে মাস্টার কার্ড অর্ডার করবেন? 
বা অনলাইনে কিভাবে মাস্টারকার্ড পাবেন?


অনলাইনে এমন অনেক সাইট আছে যারা মাস্টার কার্ড দিয়ে থাকে। তবে সবাই কিন্তু আমাদের দেশে সার্ভিস দিবে না। আপনি অনলাইনে মাস্টার কার্ড অর্ডার করলেও একটি প্লাসটিক কার্ড পেতে চাইবেন। 


তাই এত হাবিজাবি সাইট না বলে একটা সাইট বলছি। যারাই শুধুমাত্র বাংলাদেশে কার্ড দিয়ে থাকে। আর কোন কোম্পানি বাংলাদেশে কার্ড পাঠায় না।


এটি হচ্ছে পেওনিয়ার মাস্টার কার্ড।


পেওনিয়ার হলো একটি ইন্টারন্যাশনাল কোম্পানি যারা বিশ্বব্যাপি মাস্টার কার্ড প্রদান করে থাকে।

যেকেউ চাইলে শর্ত পূরণের মাধ্যমে তাদের কার্ডটি নিতে পারে। তারা বিশ্বস্ততার সাথে সারাবিশ্বে সেবা দিয়ে আসছে। 


এ কার্ডটি নেওয়ার জন্য যেসব জিনিাগুলো লাগবে।

১. ব্যাংকের হিসাব নম্বর (যেকোন লোকাল ব্যাংক)

১. NiD card

২. ১০০ ডলার ডেপোজিট।


ভয় পাবেন না, ১০০ ডলার ডিপোজিট মানে এই না যে এ কার্ডের জন্য আপনার ১০০ ডলার খরচ করতে হবে। এ ১০০ ডলার আপনার একাউন্টে থাকবে। এবং কার্ড অর্ডার করা হয়ে গেলেই আপনি টাকা তুলে ফেলতে পারবেন। বা এই টাকা দিয়েই অনলাইনে কেনাকাটা শুরু করে দিতে পারবেন। 

১০০ ডলার ডিপোজিট শুধুমাত্র কার্ডটি সচল লরা বা পাওয়ার জন্য।


এখন আপনি কিভাবে ১০০ ডলার ডিপোজিট করবেন?

এজন্য আপনি যদি কোন মার্কেটপ্লেসে কাজ করে থাকেন সেখান থেকে পেমেন্ট সরাসরি পেওনিয়ার একাউন্টে নিলেই হয়ে যাবে। অথবা যারা অনলাইনে কাজ করে তাদের সহায়তাও নিতে পারেন। তারা আপনার একাউন্টে ১০০ ডলার ডিপোজিট করে দিবে আপনি তাদের ১০০ ডলার সমমূল্যের টাকা দিয়ে দিবে।

আপনার ত লস নাই। টাকা ত থাকবেই।


চলুন দেখে নেই পেওনিয়ার মাস্টার কার্ড কিভাবে নিবেন?
বা পেওনিয়ার মাস্টার কার্ড কিভাবে নিতে হয়?


১. মাস্টার কার্ড পাওয়ার জন্য প্রথমে আপনাকে Payoneer ওয়েবসাইটে গিয়ে নতুন একাউন্ট খুলতে হবে।

একাউন্ট খুলার জন্য একটি ইমেইল লাগবে।


২৷ একাউন্ট খুলা হয়ে গেলে,একাউন্টে লগইন করে ডিপোজিট করবেন।


৩। পরবর্তীতে কার্ড অর্ডার করে আপনার ঠিকানা দিবেন। কার্ডটি আপনার নিকটস্থ পোস্ট অফিসে আসবে। কার্ডটি আসতে ১-২ সপ্তাহ সময় লাগতে পারে। নিয়মিত পোস্ট অফিসে যোগাযোগ রাখবেন।


পৃথিবী দিন দিন আপডেট হচ্ছে। এখন কেনাকাটা আর এক শহরে সীমাবদ্ধ নেই। দেশ ছাড়িয়ে বাইরের দেশের প্রতিষ্ঠান থেকেও প্রোডাক্ট কেনার প্রয়োজন হয়। মাস্টার কার্ড হয়ে উঠেছে আমাদের প্রতিদিনের সঙ্গি।


বিষয়গুলে আপনার কাছে জটিল মনে হলে ইউটিউবে ভিডিও দেখতে পারেন। অনেক ভিডিও আছে।


ধন্যবাদ পোস্টটি পড়ার জন্য।